এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর - বিডি বুলেটিন এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর - বিডি বুলেটিন

শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ০১:৪০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
দেশে করোনায় আরও দুজনের মৃত্যু, আক্রান্ত বেড়ে ৭০ করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ২ জনের মৃত্যু করোনায় মৃতদের গোসল ও দাফনে স্বেচ্ছায় যে ১১ ব্যক্তি আগ্রহী! চীনের আবিষ্কৃত করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণকারীরা সুস্থ আছেন আমেরিকায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ৭ হাজার ছাড়াল ঝালকাঠিতে স্বপ্নপূরণ সমাজকল্যাণ সংস্থার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ,পাঁচ টাকায় ৮ পণ্য মোংলায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা সুন্দরবনের জলদস্যুদের পাশে দাঁড়ালো র‍্যাব-৮ জলঢাকায় ৫৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ডোমারের পাঙ্গায় ব্যবসায়ীর ৩০ হাজার টাকা জরিমানা কর্মহীন মানুষদের জন্য সহায়তা চেয়ে নীলফামারী জেলা প্রশাসকের গণবিজ্ঞপ্তি
এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর

এএসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর

বিডিবুলেটিন ডেস্ক:
পুলিশের এএসপি পরিচয়ে ফেসবুকে যোগাযোগের সূত্র ধরে সিলেট থেকে এক তরুণীকে বরিশালের আবাসিক হোটেলে নিয়ে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বরিশালের বিমানবন্দর থানায় মামলা করেছেন বর্তমানে অন্তঃসত্ত্বা ওই তরুণী। ধর্ষিতা সিলেটের একটি স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

নির্যাতিতা তরুণী জানান, ২০১৮ সালের শুরুর দিকে ফেসবুকের মাধ্যমে রাসেল নামের ঐ ব্যক্তি পুলিশের এএসপি পরিচয় দিয়ে তার সাথে যোগাযোগ করেন। এর সূত্র ধরে প্রায়ই ফেসবুকে এবং মুঠোফোনে কথাবার্তা চলে তাদের। এর এক পর্যায়ে ৮ মাসের ব্যবধানে ২০১৮ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ওই তরুণীকে সিলেট থেকে বিয়ের প্রলোভনে বরিশালে নিয়ে আসেন।

এরপর নগরীর নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকার আবাসিক হোটেল শরীফে রেখে ঐ তরুণীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক করেন। এভাবে একাধিকবার বরিশালে যাতায়াতের পর ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। বিষয়টি রাসেলকে জানালে সে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় বলেও ঐ তরুণী জানান।

পরে ঐ তরুণী রাসেলকে খুঁজে বের করতে সোমবার (২৭ জানুয়ারি) বরিশালের পুলিশ কমিশনারের কাছে যান এবং রাসেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে এ ঘটনায় মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) নগরীর বিমানবন্দর থানায় মামলা রুজু হয়। পুলিশ তরুণীকে আদালতে সোপর্দ করলে আদালত তাকে সেভ হোমে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ ঘটনায় প্রতারককে খুঁজে বের করে তার গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন ওই তরুণী।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান জানান, ওই তরুণীর অভিযোগ তদন্ত চলছে। অভিযুক্তকে শনাক্ত করা হয়েছে। সে পুলিশ নয়। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। শিঘ্রই তাকে গ্রেফতার করে আইনের হাতে সোপর্দ করার চেষ্টা চলছে বলেও পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন। ওই তরুণী সিলেটের একটি স্কুলের ১০ শ্রেণির ছাত্রী। নিজের ভুল বুঝতে পেরে পরিবারের কাছে ফিরতে চায় ওই তরুণী।

 804 total views,  3 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018