কীর্তণখোলা-২ লঞ্চে যু্বক খুনের ঘটনায় থানা থেকে আসামী পলায়ন - বিডি বুলেটিন কীর্তণখোলা-২ লঞ্চে যু্বক খুনের ঘটনায় থানা থেকে আসামী পলায়ন - বিডি বুলেটিন

শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৩৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
কুয়াকাটায় আবাসিক হোেটেল থেকে ৬ পতিতা আটক ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকের নিয়ে পালাতে গিয়ে পুলিশের খাঁচায় শিক্ষক আগৈলঝাড়ায় অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি আগৈলঝাড়ায় রাজিহার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ভালো রেজাল্ট করলেই হবে না ভালো মানুষও হতে হবে: ইকরামুল হক টিটু আগৈলঝাড়ায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে জিআর মামলার আসামী গ্রেফতার আবরার হত্যাকাণ্ডে ২৬ শিক্ষার্থীকে আজীবন বহিষ্কার সিরিয়া যুদ্ধে এখন পর্যন্ত ২৯ হাজার শিশু নিহত মুন্সীগঞ্জে বাস-মাইক্রো সংঘর্ষে ৭ বরযাত্রী নিহত গোপালগঞ্জে গৃহবধু হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন
কীর্তণখোলা-২ লঞ্চে যু্বক খুনের ঘটনায় থানা থেকে আসামী পলায়ন

কীর্তণখোলা-২ লঞ্চে যু্বক খুনের ঘটনায় থানা থেকে আসামী পলায়ন

ডেক্স,, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা থেকে ইয়ামিন নামে এক হত্যা মামলার আসামি পালিয়ে গেছে। শুক্রবার (০৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শনিবার (০৯ নভেম্বর) ছয় পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ সদস্যরা হলেন- উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু সিদ্দিক, মিজান, জহিরুল ইসলামের, কনস্টেবল লতিফ, হাসেম ও অপারেটর রফিক।

ঢাকা জেলা পুলিশের মিডিয়া সেন্টার ইনচার্জ পরিদর্শক শামীম বলেন, এ ঘটনায় ডিএসবির পুলিশ সুপার শরিফুল ইসলামকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ছয় পুলিশ সদস্যকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

গত অক্টোবর মাসের ১৮ তারিখ সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে বরিশালগামী কীর্তণখোলা-২ লঞ্চের ক্যান্টিনের সামনে খুন হন রুবেল (২২) নামে এক যুবক। ওই ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হলে মামলার তদন্তভার পান এসআই আবু সিদ্দিক। তদন্ত শেষে হত্যায় জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়ে আসামি ইয়ামিনকে আটক করা হয়। পরে আসামি ইয়ামিনকে থানায় এনে পরিদর্শক অপারেশনের কক্ষে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন এসআই আবু সিদ্দিক ও মিজান।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আসামি ইয়ামিনকে ওই রুমে রেখে এসআই আবু সিদ্দিক ও মিজান বেরিয়ে যান। তাখন সুযোগের সদ্ব্যবহার করে হাতকড়া খুলে কৌশলে ডিউটি অফিসার এসআই জহিরুল ইসলামের সামনে দিয়ে পালিয়ে যান ইয়ামিন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018