কুতুবদিয়া ভূমি অফিস দুর্নীতি ও দালালমুক্ত করতে এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমার প্রসংশনীয় উদ্যোগ - বিডি বুলেটিন কুতুবদিয়া ভূমি অফিস দুর্নীতি ও দালালমুক্ত করতে এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমার প্রসংশনীয় উদ্যোগ - বিডি বুলেটিন

সোমবার, ০১ Jun ২০২০, ০৭:১৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
কুতুবদিয়া ভূমি অফিস দুর্নীতি ও দালালমুক্ত করতে এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমার প্রসংশনীয় উদ্যোগ

কুতুবদিয়া ভূমি অফিস দুর্নীতি ও দালালমুক্ত করতে এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমার প্রসংশনীয় উদ্যোগ

Print Friendly, PDF & Email

নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়াঃ
কুতুবদিয়া ভূমি অফিস দালাল মুক্ত করে শতভাগ গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে প্রসংশনীয় উদ্যোগ নিয়েছেন এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমা। ভূমি অফিস ‘দালালের আখড়া’ এমন অপবাদ থেকে রক্ষা করতে জমি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বিলবোর্ড ব্যানার ও পেস্টুন আকারে বিভিন্ন দৃশ্যমান স্থানে টাঙ্গিয়েছেন তিনি। যাতে সরকার নির্ধারিত ফি প্রদান করে একজন গ্রাহক খুব সহজেই কাঙ্খিত সেবা পেতে পারেন।
৩রা নভেম্বর কুতুবদিয়া উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শণ করে দেখা যায়, অফিসে প্রবেশ মুখে একটি বিলবোর্ড। তাতে লেখা-“ একটু থামুন”। থামলান এবং দেখলাম। এরপর অফিসের চারপাশে একটু চোখ বোলিয়ে দেখলাম প্রতিটি দেয়ালে বিভিন্ন ব্যানার ও পেস্টুনে ভর্তি। চোখ পড়ে দেয়ালের একটি জায়গায়, যেখানে লেখা- “এই অফিসে কাউকে ঘুষ দিবেন না। ঘুষ দেয়া ও নেয়া আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।”

সেবা প্রার্থীদের জন্য রাখা হয়েছে একটি তথ্য সেবা কর্ণার। করা হয়েছে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য রাখা হয়েছে একটি আলাদা মুক্তিযোদ্ধা কর্ণার। রয়েছে একটি অভিযোগ বক্সও। সেবা প্রার্থীদের যে কেউ চাইলে অভিযোগ করতে পারবেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবরে।
এই বিষয়ে কথা হয়, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুপ্রভাত চাকমার সাথে, তিনি বলেন- আমি যোগদানের পর থেকে দ্বীপের মানুষের শতভাগ সেবা নিশ্চয়তার পাশাপাশি ভূমি অফিসকে দুর্নীতি মুক্ত করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। যে কেউ ই-নাম জারি, ভূমিকর পরিশোধসহ জমি সংক্রান্ত যে কোন পরামর্শের জন্য সরাসরি আমার সাথে কথা বলতে পারবেন, কোন তৃতীয় পক্ষের সাহায্য নিতে হবেনা, বলেন তিনি।
এই অফিসের কেউ টাকা দাবী করলে বা কোন দালারের খপ্পরে পড়লে সরাসরি প্রমাণসহ অভিযোগ দিতে বলেন এসিল্যান্ড সুপ্রভাত চাকমা।
এদিকে এসিল্যান্ডের নেয়া এ উদ্যোগের প্রসংশা করেছেন দ্বীপবাসী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন ভোক্তভোগী বলেন, পূর্বের দূর্নীতিবাজ, ঘুষখোর তহশীলদারের একছত্র আধিপত্যে আমাদের অনেক টাকা নষ্ট হয়েছে এবং অনেক সমস্যাও সৃষ্টি হয়েছে। ওই তহশীলদারকে অন্যত্র বদলী করে নতুন তহশীলদার নিয়োগ দেয়ায় সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তারা।

 332 total views,  2 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018