ঝালকাঠিতে যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রমে কবরস্থান পরিস্কার - বিডি বুলেটিন ঝালকাঠিতে যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রমে কবরস্থান পরিস্কার - বিডি বুলেটিন

সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০২:১৮ অপরাহ্ন

ঝালকাঠিতে যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রমে কবরস্থান পরিস্কার

ঝালকাঠিতে যুবকদের স্বেচ্ছাশ্রমে কবরস্থান পরিস্কার

ঝালকাঠিঃ-
ঝালকাঠিতে স্বেচ্ছায় কবরস্থানের ময়লা-আবর্জনা ও জঙ্গল পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ শুরু করেছে কয়েকজন যুবক। স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের এমন কার্যক্রম বিভিন্ন মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছে। শহরের মুসলিম কবরস্থানের দুই একর জমির প্রায় ১০ হাজার কবর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ করছে তাঁরা। এতে এক মাস সময় লাগবে বলে জানিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী যুবকরা। স্থানীয়রা জানায়, ঝালকাঠি শহরের একমাত্র মুসলিম কবরস্থানটি বর্ষা মৌসুমে পানি জমে ঘাস ও লতাপাতায় ছেয়ে যায়। ময়লা-আবর্জনার সাথে ঝোপ-ঝাড়-জঙ্গলে পরিনত হয় কবরস্থানটি। মৃত ব্যক্তিদের কবর দেওয়ার পরিবেশও নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। এ অবস্থা দেখে স্থানীয় আসিফ ইকবাল চঞ্চল, সাগর হালদার এবং মিজান রহমান নামের তিন যুবক স্বেচ্ছায় কবরস্থান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ শুরু করেন। তাদের দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে ১০-১২ জন যুবক প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নিরলসভাবে কবরস্থান পরিস্কারের কাজ করে যাচ্ছে। এ কাজ শেষ করতে এক মাস সময় লাগবে বলে জানিয়েছে যুবকরা। কোন চাঁদা কিংবা কারো সহায়তায় নয়, নিজেরাই স্বেচ্ছাশ্রমে কবরস্থান পরিস্কার করছেন বলে তারা জানান। সেচ্ছাসেবী যুবক সাগর হালদার বলেন, আমি হতে পারি হিন্দু ধর্মের, কিন্তু সেটা আমার কাছে বড় বিষয় নয়; আমি মানব সেবায় কোন ধর্ম বর্ণ বিবেচনা করি না। আমি সবসময় মনে করি আমরা সবাই মানুষ আর মানব সেবার মাধ্যমেই সৃষ্টিকর্তাকে পাওয়া যায় বলে আমি বিশ্বাষ করি। তাই কোন ধর্ম বর্ণের ভেদাভেদ চিন্তা না করে আমরা মুসলিম কবরস্থানের আবর্জনা পরিস্কার করছি। আসিফ ইকবাল চঞ্চল বলেন, আমরা সমাজের অনেক সমস্যার সমাধানে কতৃপক্ষের অপেক্ষায় থাকি। কিন্তু আমরা যদি একটু চিন্তা করে তাদের দিকে না তাকিয়ে নিজেদের উদ্যোগে কাজ করি, তাহলে সেই সকল সমস্যাও দ্রুত সমাধান হতে পারে। আর এই চিন্তা ধারার বহিপ্রকাশ ও বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমাদের এ পদক্ষেপ। ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার বলেন, আমরা পৌরসভার পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় কবরস্থান পরিস্কার করে থাকি। বৃষ্টির মৌসুমের পরে স্থানীয় কয়েকজন যুবক নিজেরাই কবরস্থান পরিস্কার-পরিচ্ছন্নের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করলে, আমি তাদের কাজে সমর্থন দিয়েছি। ওরা সেচ্ছাশ্রমে একটি ভাল কাজ করে যাচ্ছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018