পটুয়াখালীতে চলছে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি - বিডি বুলেটিন পটুয়াখালীতে চলছে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি - বিডি বুলেটিন

সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সিএনজি-ট্যাক্সি চালকদের ‘পরিচিতি কার্ড’ দিল সিএমপি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২তম সমাবর্তন আজ বানারীপাড়ায় ট্রিপল মার্ডা‌রের ঘটনায় বা‌ড়ির মা‌লি‌কের স্ত্রীকে গ্রেফতার ব‌রিশাল বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ে আ‌ধিপত্য বিস্তার‌কে কেন্দ্র ক‌রে হামলায় আহত ৪ ব‌রিশা‌লের ট্রিপল হত্যাকান্ডের গ্রেপ্তারকৃত দুই অাসামী ১৬৪ ধারায় স্বীকা‌রো‌ক্তিমূলক জবানব‌ন্দি দি‌য়ে‌ছে অাদাল‌তে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিকের মৃত্যু সুনামগঞ্জে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত রাজশাহী জেলা আ’লীগের সভাপতি মেরাজ মোল্লা, সম্পাদক দারা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বরিশালে বিক্ষোভ মিছিল
পটুয়াখালীতে চলছে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি

পটুয়াখালীতে চলছে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি

রিয়াজ মাহমুদ,পটুয়াখালী:
পটুয়াথালীতে চলছে সারাদেশের মতো নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারীদের ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য শ্রমিকদের কর্মবিরতি। শুক্রবার রাত ১২টা থেকে এ কর্মবিরতি শুরু হয়। বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন ১১দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দেয়।

সকাল থেকে পটুয়াখালী নদী বন্দর থেকে কোন লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। এজন্য অভ্যন্তরিন সকল রুটে নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ঢাকা গামী ডাবল ডেকার লঞ্চের একাধিক শ্রমিক ও মাষ্টার জানান, সকলের প্রভিডেন্ট ফান্ড ও ওয়েলফেয়ার ফান্ড আছে। আমরা নৌযান শ্রমিকদের কোন প্রভিডেন্ট ফান্ড ও ওয়েলফেয়ার ফান্ড নেই। কোন প্রকার নোটিশ ছাড়াই মালিক পক্ষ আমাদের চাকরি থেকে ছাটাই করে। শ্রমিক লীগ নেতারা অহেতুক আমাদের মারধর করে যাদের আদৌও কোন নৌযান শ্রমিক নেই। যত সময় পর্যন্ত আমাদের ১১ দফা দাবী সরকার না মানবে আমরা কাজ করবো না।

দাবি হলো, বাল্কহেডসহ সকল নৌযান- নৌপথে সন্ত্রাস চাঁদাবাজি ডাকাতি বন্ধ। ২০১৬ সালে ঘোষিত গেজেট মোতাবেক কেরানিকে ভিডিও ইলেকট্রিশিয়ান সহ সকল নৌ শ্রমিকের বেতন প্রদান। ভারতগামি শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাস প্রদান প্রদান হয়রানি বন্ধ। সব নৌ-শ্রমিককে মালিক কর্তৃক খাদ্যভাতা প্রদান। এনড্রোস, ইনচার্জ, টেকনিক্যাল ভাতা পুনর্নির্ধারণ। কর্মস্থলে ও দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণকারী শ্রমিকের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণ। নৌ-শ্রমিককে মালিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র ও সার্ভিস বুক দিতে হবে। নৌ-শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। নদীর নাব্যতা রক্ষা ও প্রয়োজনীয় মার্কা, বয়া ও বাতি স্থাপন। মাস্টার/ড্রাইভার পরীক্ষা, সনদ বিরতণ, সনদ নবায়ন, পরিদর্শনসহ নৌ পরিবহন অধিদফতরের সব প্রকার অনিয়ম ও শ্রমিক হয়রানি বন্ধ।

নদী বন্দর কর্মকর্তা খাজা সাদিকুর রহমান জানান, এটা কেন্দ্রীয় বিষয় কেন্দ্রীয় ভাবে দেখছে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018