পলাতক প্রবাসীরা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু - বিডি বুলেটিন পলাতক প্রবাসীরা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু - বিডি বুলেটিন

মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

পলাতক প্রবাসীরা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু

পলাতক প্রবাসীরা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু

আফরোজা সুলতানাঃ

এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমেমঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাতে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এতে বলা হয়, বুধবারের মধ্যে জেলার পলাতক প্রবাসীরা স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু হবে। গত ১ মার্চ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ থেকে বিমানবন্দর ও স্থলবন্দর দিয়ে মানিকগঞ্জে এসেছেন মোট ২ হাজার ৭০০ প্রবাসী। এর মধ্যে ৮ মার্চ থেকে ২০ মার্চের মধ্যে এসেছেন ১ হাজার ৩৮৮ জন। বুধবার পর্যন্ত মানিকগঞ্জে মোট হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় এসেছেন ৭৯২ জন। একই সময়ে ১৪ দিন পার হওয়ায় হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে অবমুক্ত হয়েছে ২৯৩ জন। মঙ্গলবার পর্যন্ত বাকি ৪৯৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। কিন্তু অবশিষ্ট বিপুল সংখ্যক প্রবাসীদের নিজ নিজ ঠিকানায় পাওয়া যায়নি। তাদের খুঁজতে প্রশাসন মাঠে কাজ করছে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। বিদেশফেরত এ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বাইরে ঘোরাঘুরির অভিযোগে ১০ জনকে বিভিন্ন অঙ্কের জরিমানা করা হয়। আর যাদের নিজ নিজ ঠিকানায় খুঁজে পাওয়া যায়নি তাদের বের করতে প্রশাসন মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে। জেলা থেকে শুরু করে প্রতিটি ইউনিয়নের ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রশাসনের নজরদারি করেও তাদের না পাওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে তারা আত্মগোপন করে রয়েছেন। এদিকে করোনা সঙ্কট মোকাবিলায় জেলা প্রশাসনকে সহায়তার জন্য মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী। জেলা প্রশাসক মঙ্গলবার থেকে শপিংমল, বানিজ্য কেন্দ্র, রেস্টুরেন্ট, বিনোদন পার্ক, মেলা, সামাজিক অনুষ্ঠান, সাপ্তাহিক হাট, চায়ের দোকানের আড্ডাসহ জনসমাগম হয় এমন সব স্থান পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। সব ক্ষুদ্র ঋণ আদায় কার্যক্রমও পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে খাদ্য সামগ্রী, ওষুধ, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির সব দোকানপাট কাঁচা বাজার, চিকিৎসা ব্যবস্থা যথারীতি খোলা থাকবে। ওইসব স্থানে ১ মিটার পর্যন্ত নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মাইকিং করে নির্দেশ জারির পর পর শহরের দোকানপাট বন্ধ হয়ে গেছে। এদিকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ভোর থেকে অসংখ্য হয়ে মানুষ ঘরে ফেরছে। যা করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকিতে রয়েছে ঢাকা-পাটুরিয়া মহাসড়কসহ জেলার অন্যান্য মানুষ।
দেশের সকল লঞ্চ ও ফেরী ঘাটে যাত্রীদের পি পি ও মাস্ক ছাড়া আসা যাওয়ার ভীর চোখে পরছে ।

 144 total views,  4 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018