পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর প্রশংসা; ক্ষমা চাইলেন অরুন্ধতী রায় - বিডি বুলেটিন পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর প্রশংসা; ক্ষমা চাইলেন অরুন্ধতী রায় - বিডি বুলেটিন

রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর প্রশংসা; ক্ষমা চাইলেন অরুন্ধতী রায়

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর প্রশংসা; ক্ষমা চাইলেন অরুন্ধতী রায়

অনলাইন ডেস্ক : পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর প্রশংসা করে দেয়া বক্তৃতার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন ভারতের আলোচিত লেখিকা অরুন্ধতী রায় (৫৭)। ২০১১ সালে ওই বক্ততা দিলেও সম্প্রতি সেটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে। তাকে ওই ভিডিওতে বলতে শোনা যায়, গণতান্ত্রিক ভারত তার সেনাবাহিনীকে নিজ দেশের মানুষের বিরুদ্ধে ব্যবহার করেছে। পাকিস্তান কখনো সেটা করেনি।

বুধবার সেই বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে অরুন্ধতী বলেন, ভারত-পাকিস্তান সেনাবাহিনীর তুলনা করে প্রায় এক দশক আগে দেয়া সেই বক্তব্য ‘তিনি এখন কী বিশ্বাস করেন বা বিগত বছরগুলোতে কী লিখেছেন’ তাকে প্রতিনিধিত্ব করে না।
৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের মাধ্যমে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করলে কাশ্মিরীদের পক্ষালম্বন করেন অরুন্ধতী। তিনি কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে ভারতীয় মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের খড়গ নেমে আসতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন। এ তিনি তিনি লেখালেখিও করেছেন। এরপরপরই ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

সেই ভিডিওতে দেখা যায় অরুন্ধতী রায় বলছেন, শুরু থেকেই কাশ্মীর, মনিপুর, নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, তেলেঙ্গানা, পাঞ্জাব, গোয়া ও হায়দরাবাদে যুদ্ধ করছে ভারত। নিজের জনগণের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীকে ব্যবহার করছে। পাকিস্তান রাষ্ট্র গণতান্ত্রিক ভারতীয় রাষ্ট্রের মতো তার নিজের জনগণের বিরুদ্ধে সেনা মোতায়েন করেনি। খেয়াল করলে দেখবেন ভারতীয় রাষ্ট্র উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে যাদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে, তারা সবাই আদিবাসী। কাশ্মীরে মুসলিমদের বিরুদ্ধে, তেলেঙ্গানায় আদিবাসীদের, হায়দরাবাদে মুসলিমদের, গোয়ায় খ্রিস্টানদের এবং পাঞ্জাবে মুসলিমদের বিরুদ্ধে লড়ছে ভারতীয় রাষ্ট্র। এর ফলে আপনারা উচ্চবর্ণের এই হিন্দু রাষ্ট্র দেখছেন যা অনন্ত যুদ্ধে লিপ্ত।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018