বরিশালে সড়কের বেহাল দশা, বিনোদন প্রেমিদের ভোগান্তি বিসিসি মেয়রের হস্তক্ষেপ কামনা - বিডি বুলেটিন বরিশালে সড়কের বেহাল দশা, বিনোদন প্রেমিদের ভোগান্তি বিসিসি মেয়রের হস্তক্ষেপ কামনা - বিডি বুলেটিন

বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১০:৩৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে তারুণ্যের শপথ আগৈলঝাড়ায় অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই কোন শহীদ মিনার সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় বিআরইউ’র নিন্দা ও প্রতিবাদ আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপিকে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কমিটির পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে ২ দিন ব্যাপি ভাষা স্মারক ও সাহিত্য প্রদর্শণীর উদ্বোধন আগৈলঝাড়ায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে সড়কে প্রাণ গেল স্ত্রীর, স্বামী হাসপাতালে সিএএ মুসলিমদের জন্য ব্যাপক বঞ্চনা তৈরি করবে : যুক্তরাষ্ট্র অস্কার জিতলেন সাকিব! নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা বন্ধে তারুণ্যের শপথ
বরিশালে সড়কের বেহাল দশা, বিনোদন প্রেমিদের ভোগান্তি বিসিসি মেয়রের হস্তক্ষেপ কামনা

বরিশালে সড়কের বেহাল দশা, বিনোদন প্রেমিদের ভোগান্তি বিসিসি মেয়রের হস্তক্ষেপ কামনা

শহিদুল ইসলাম//

কীর্তনখোলা নদীর তীরে যাতায়াতের সড়কের বেহাল দশা। এখানে ঘুরতে আসা বিনোদনপ্রেমিদের ভোগান্তিতে আনন্দটা নাকি বিফলে যাচ্ছে।এবং তারা বরিশাল সিটি কর্পোরেশন মাননীয় মেয়র মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করে বলেছেন, আমরা যেকোন ছুটির দিনে পরিবার পরিজন নিয়ে এই কীর্তনখোলা নদীর তীরে কিছু সময়ের জন্য হলেও ঘুরেতে আসি।এমন অবস্থায় আমাদের এখানে আসা যাওয়ার চলাচলের রাস্তাটি খুবই খারাব,এবং পাশেও কম, একটি গাড়িকে সাইট দিয়ে উঠতে গেলে সমস্যা পড়তে হয়,অনেক সময় ছোট খাট দুর্ঘটনাও ঘটছে আমরা জানি। তাই বলবো এই প্রতিবেদকের মাধ্যামে মেয়র মহোদয় আপনি এই সড়কটি সংস্কারে ব্যবস্থা নিবেন এমনটাই জানিয়েছেন তারা।আজ বিকালে সরেজমিনে গেলে দেখা যায়,রাস্তাটি খানা-খন্দ ও গর্তে পানি জমে সড়কটি এখন যেন মরণ ফাঁদ।খোজ নিয়ে জানা গেছে,বরিশালের বিভিন্ন এলাকা থেকে যানবাহনে প্রতিদিন বহুলোক চলাচল করে।পরিবার পরিজন নিয়ে নদীর তীরে সময় কাটানোর জন্য। যে রাস্তাটি দিয়ে আসা যাওয়া করে, রাস্তাটি এখন চরম অবনতি হয়ে পড়েছে। সড়কটি খানা-খন্দ হয়ে গেলেও কারো নজরে পড়ছে না।খানাখন্দের কারণে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন প্রতিদিন দর্শানার্থী সহ এলাকাবাসি।এছাড়াও রয়েছে ব্যাটালিয়ন ক্যাম্প,সকল পর্যায়ের মানুষদের আনাগোনা।সড়কের বেহাল দশা দেখলে মনে হয় এই এলাকায় কোন জন প্রতিনিধি কেউই সড়কের কাজ করতে রাজি নন। প্রতিদিন হাজারো মানুষ ভোগান্তি পোহাচ্ছে এই সড়কটিতে। কাদা-পানি, গর্তে ভরা, যানবাহনের পাশাপাশি হেঁটে চলা এসব সড়ক ব্যবহারকারীর দুর্ভোগ ভোগান্তির যেন শেষ নেই। দীর্ঘদি সড়কটি মেরামত সংস্কার না হওয়ায় যানবাহন চলাচলে পোহাতে হচ্ছে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ। বলা চলে বিনোদনপ্রমিদের সঙ্গে এলাকাবাসির যোগাযোগের প্রধান এই সড়ক। এই সড়ক দ্রুত সংস্কার সহ আরও চড়রা করার সমাধানের দাবি উঠেছে নদীর তীরে ঘুরতে দর্শানার্থী কাছ থেকে।সিটি কর্পোরেশনের তথ্যমতে জানা যায়,বৃস্টির মৌসুম শেষ হলেই নগরীর ভাঙ্গা চুরা সকল সড়কের ৫ বছর মেয়াদী সংস্কার করা হবে এমনটাই জানা যায়।

108 total views, 4 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018