বাউফল উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে : আসম ফিরোজ - বিডি বুলেটিন বাউফল উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে : আসম ফিরোজ - বিডি বুলেটিন

সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৩০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে হেলমেট পরলেই পুরস্কার ১ কেজি পেঁয়াজ সিএনজি-ট্যাক্সি চালকদের ‘পরিচিতি কার্ড’ দিল সিএমপি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২তম সমাবর্তন আজ বানারীপাড়ায় ট্রিপল মার্ডা‌রের ঘটনায় বা‌ড়ির মা‌লি‌কের স্ত্রীকে গ্রেফতার ব‌রিশাল বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ে আ‌ধিপত্য বিস্তার‌কে কেন্দ্র ক‌রে হামলায় আহত ৪ ব‌রিশা‌লের ট্রিপল হত্যাকান্ডের গ্রেপ্তারকৃত দুই অাসামী ১৬৪ ধারায় স্বীকা‌রো‌ক্তিমূলক জবানব‌ন্দি দি‌য়ে‌ছে অাদাল‌তে। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিকের মৃত্যু সুনামগঞ্জে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত রাজশাহী জেলা আ’লীগের সভাপতি মেরাজ মোল্লা, সম্পাদক দারা
বাউফল উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে : আসম ফিরোজ

বাউফল উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে : আসম ফিরোজ

এ.এফ.এম রিয়াজ:
পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন হয়েছে বাংলাদেশে আ’লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ওবাদুল কাদের ও বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিমের নির্দেশে।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় সাংসদ আসম ফিরোজ এ কথা বলেন।
আ.স.ম ফিরোজ বলেন, “জেলা নেতৃবৃন্দ উপস্থিতিতে সম্মেলনে উপস্থিত কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে নতুন কমিটি উপহার দিয়েছেন”। উপস্থিত সাংবাদিকরা এসময়ে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল কর্তৃক সম্মেলন আয়োজনের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করলে তিনি বলেন, “তাদের ইউনিয়ন পর্যায় কোন কমিটি নেই তারা আ’লীগের নির্দেশ অমান্য করে বিএনপি লোক নিয়ে সম্মেলন করেছে। সংগঠনের গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে কাউন্সিল হয় না বড়জোর তাকে পিকনিকি বলা যেতে পারে”।

এসময়ে সংগঠন পরিপন্থী কাজ করার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে জেলা কমিটিকে অবহিত করার পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানাবেন বলে উপস্থিত সংবাদকর্মীদের জানান তিনি ।

উল্লেখ্য গত ২৮ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত সম্মেলনের পাল্টা জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউল হক জুয়েল সম্মেলন আয়োজন করায় বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন নিয়ে তৈরী হয় ব্যাপক নাটকীয়তা।
নিয়মানুযায়ী উপজেলা আওয়ামীলীগ কর্তৃক সম্মেলন আয়োজন করার কথা থাকলেও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কর্তৃক পাল্টা সম্মেলন আয়োজন করা নিয়ে দিনভর সাধারন মানুষের মধ্যে চলতে থাকে নানা জল্পনা কল্পনা। কোন সম্মেলনে আসছেন জেলা নেতৃবৃন্দ কিংবা কোন কমিটি বৈধতা পাবে আর কোন কমিটি অবৈধ এ নিয়ে সাধারন কর্মীরা ছিল শংকিত।

এদিকে পাল্টাপাল্টি সম্মেলন আয়োজন করা নিয়ে ২৭ নভেম্বর পাল্টাপাল্টি সাংবাদিক সম্মেলন করে একে অপরকে দোষারোপ করে বক্তব্য প্রদান করেন সাংসদ আসম ফিরোজ ও পৌর মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল।

বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত কাউন্সিল স্থলে সকাল ৯টা থেকেই আসতে শুরু করেন দলীয় নেতা কর্মীরা। প্রায় ২৫ /৩০ হাজার নেতা কর্মী জড়ো হয় উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত ওই সম্মেলন স্থলে। হাজার হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত হলেও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাধারন সম্পাদকের না আসার গুঞ্জনে নেতা কর্মীদের মাঝে সৃষ্টি হয় উদ্বিঘœতা।

অন্যদিকে জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ আসছেনা এমন খরবে কিছুটা উজ্জীবিত ছিলেন মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল অনুসারী নেতা কর্মীরা। একই সময়ে মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল আয়োজিত সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রায় ৩ হাজার লোক।

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে দুপুর ১টার দিকে বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত সম্মেলনে উপস্থিত হন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মো. শাহজাহান মিয়া ও ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক কাজী আলমগীর হোসেনসহ জেলা আওয়ামীলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সম্মেলনে আসা নিয়ে শঙ্কা এবং বিলম্বের কারনে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের তোপের মুখে পরেন জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দরা। পরে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক উপস্থিত আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের কাছে সম্মেলনে আসা নিয়ে শঙ্কা এবং বিলম্বের কারন ব্যাখ্যা করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আসম ফিরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট শাহজাহান মিয়া এমপি বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার বাউফল পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম ফারুক সহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। পরে দ্বিতীয় অধিবেশনে উপস্থিত কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে বাউফল উপজেলা বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে আসম ফিরোজ এবং এবং সাধারন সম্পাদক হিসেবে আবদুল মোতালেব হাওলাদার এবং ১নং সহ সভাপতি হিসেবে জেলা আওয়ামীরীগের ত্রান ও সমাজকল্যান বিষয়ক সম্পাদক রায়হান সাকিবের নাম ঘোষনা করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাভোকেট শাহজাহান মিয়া এমপি।

অপরদিকে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেয়র জিয়াউল হক জুয়েল আয়োজিত সম্মেলনের উদ্বোধক হিসেবে জিয়াউল হক জুয়েলের নাম থাকলেও সম্মেলনে উপস্থিত হননি তিনি। জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য বাউফল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে উক্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন শেষে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা জসীম ফরাজীকে সভাপতি এবং জাহাঙ্গীর উল্লাহকে সাধারন সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষনা করা হয়। অবশ্য উক্ত সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেননা কোন জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018