মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত: বিকাল থেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটছে মানুষ - বিডি বুলেটিন মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত: বিকাল থেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটছে মানুষ - বিডি বুলেটিন

বৃহস্পতিবার, ০৪ Jun ২০২০, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন

মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত: বিকাল থেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটছে মানুষ

মোংলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত: বিকাল থেকেই আশ্রয় কেন্দ্রে ছুটছে মানুষ

Print Friendly, PDF & Email

মনির হোসেন,মোংলাঃ
ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র প্রভাব ও ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত চালু থাকায় মোংলার আবহাওয়া পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হচ্ছে। শনিবার (৯ নভেম্বর) রাত ৮টা থেকে ১২টা নাগাদ ঘূর্ণিঝড়টি সুন্দরবন ও মোংলা বন্দরে আঘাত হানতে পারে বলে ধারণা করছেন স্থানীয় আবহাওয়া অফিস।
জানা গেছে, ইতিমধ্যে পৌর এলাকার অনেক মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে। যে সকল বাসিন্দারা আশ্রয় কেন্দ্রে আসতে চাইছে না তাদেরকে আশ্রয় কেন্দ্রে আনতে পৌরসভা, সিপিপি ও স্থানীয় প্রশাসন বিকাল থেকেই কাজ শুরু করেছে। আশ্রয় কেন্দ্রে আসা মানুষের খাদ্য ও চিকিৎসা নিশ্চিত করতে উপজেলা প্রশাসন, পৌর কর্তৃপক্ষ সহ বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সেচ্ছাসেবীরা কাজ করে যাচ্ছেন।

আশ্রয়কেন্দ্রে আসা মানুষের মধ্যে শুকনো খাবার (চিড়া, মুড়ি) বিতরণ করা হচ্ছে।
ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানলে যাতে করে এক জন মানুষ ও একটি পশুরও প্রাণহানি না ঘটে সেদিকে কঠোর নজরদারি রাখা হয়েছে।

এদিকে,বিকাল থেকেই মোংলা উপজেলার মিঠাখালী, চাঁদপাই, চিলা ইউনিয়নের বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে ছুটতে দেখা গেছে। তাদের সর্বাত্বক সহযোগিতার জন্য স্ব স্ব ইউনিয়নের প্রতিনিধিরাও প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন। সকাল থেকেই মাইকিং করে সবাইকে সচেতন করছেন এবং নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন।
ঘুর্ণিঝড় বুলবুল চলাকালীন সময়ে যে কোন ধরনের সহযোগিতার জন্য আলাদা আলাদা কন্ট্রোল রুম খুলেছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ, নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড, পৌরসভা ও উপজেলা প্রশাসন। ঘুর্ণিঝড় মোকাবেলায় উপজেলার সবগুলো ইউনিয়নে ৫ শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছে বলে জানান সিপিপির উপজেলা টিম লিডার মাহমুদ হাসান।

 108 total views,  2 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018