শনিবার, ২০ Jul ২০১৯, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বরিশালে সবজি বাজার স্থিতিশীল, বেড়েছে ডিমের দাম

বরিশালে সবজি বাজার স্থিতিশীল, বেড়েছে ডিমের দাম

শহিদুল ইসলাম।। রোজার ঈদের পর বরিশালের বাজারগুলোতে সবজির দাম অপরিবর্তিত থাকলেও ডিমের দাম হালিতে ২ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে। শুক্রবার নগরীর চৌমাথা বাজার, নতুন বাজার, বাংলা বাজার, রুপাতলী সাগরদী সহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী হঠৎ করে ডিমের দাম বাড়িয়ে ৩৫-৩৮ টাকা হালি বিক্রি করছে।যা গত সপ্তাহে হালিপ্রতি ৩৩ টাকা ছিলো।তাছাড়া বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, ঢেঁড়সের কেজি আগের মতোই বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা দরে। একই দামে বিক্রি হচ্ছে ঝিঙ্গা, করল্লা ও ধুন্দুল। পটল বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা কেজি।গত সপ্তাহের মতো করলা বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি। কাকরোল বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি, বেগুন ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি, পেঁপে ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজি, বরবটি ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি, গোল বেগুন ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি এবং কচুর লতি ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। এ সবজিগুলোর দামও অপরিবর্তিত রয়েছে।নতুল্লাবাত বাজারে এক সবজি ব্যবসায়ী জানান, নতুন করে কোনো সবজির দাম বাড়েনি। বেশিরভাগ সবজি কেজি প্রতি ৫০ টাকার নিচে বিক্রি হচ্ছে। তবে শুক্রবার হওয়ায় অন্যদিনের তুলনায় আজ সবজির দাম কিছুটা বেশি।তবে সবজির পাশাপাশি দাম অপরিবর্তিত রয়েছে কাঁচামরিচ ও মুরগির। আগের মতোই কাঁচামরিচের পোয়া (২৫০ গ্রাম) বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। বয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা কেজি। আর গরুর মাংস বাজারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা এবং খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা কেজি।তেলাপিয়া মাছ আগের মতো বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। পাঙাশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। রুই মাছ ২৮০ থেকে ৬০০ টাকা, পাবদা ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা, টেংরা ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা, শিং মাছ ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা এবং চিতল মাছ বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা কেজি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018