শনিবার, ২০ Jul ২০১৯, ০৫:১১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বানারীপাড়া পৌর শহরের সিংহভাগ রাস্তাঘাট চলাচল অনুপযোগী, অন্তহীণ জনদূর্ভোগ

বানারীপাড়া পৌর শহরের সিংহভাগ রাস্তাঘাট চলাচল অনুপযোগী, অন্তহীণ জনদূর্ভোগ

বিশেষ প্রতিনিধি॥  দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় বানারীপাড়া পৌর শহরের সিংহভাগ রাস্তা-ঘাট গভীর গর্ত ও খানাখন্দে পরিণত হয়ে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে পৌরবাসীকে অন্তহীন দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বেহাল হয়ে পড়া এ রাস্তাগুলোতে দূর্ঘটনা নিত্য নৈমেত্তিক ব্যপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে জন দূর্ভোগ বহুগুন বেড়ে গেছে। অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারণে এক পশলা বৃষ্টি হলেই পৌর শহরের বিভিন্ন রাস্তায় হাটু পর্যন্ত পানি জমে যায়। এছাড়া পৌর শহরের ৯টি ওয়ার্ডের প্রতিটি রাস্তায় পিচ,পাথর ও খোয়া উঠে শত শত গভীর গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় সেখানে বৃষ্টির পানি জমে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।এছাড়া পৌর শহরের রাস্তা কেটে ড্রেন নির্মাণ করা ও রাস্তা কেটে সাপ্লাই’র পানির লাইন তৈরী করার ফলে রাস্তা গুলো আরও বেহাল হয়ে ব্যবহার অনুপযোগী ও শ্রীহীন হয়ে পড়েছে। পৌর শহরের হাসপাতাল খালটি উদ্ধার করা হলেও বেদখল হয়ে যাওয়া অন্য খালগুলো উদ্ধারে পৌর কর্তৃপক্ষের কোন উদ্যোগ পরিলক্ষিত হচ্ছেনা। পৌর শহরের সিংহভাগ খাল,শতাধিক পুকুর ও ডোবা- নালা ভরাট হয়ে যাওয়ায় এবং অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারণে বৃষ্টি হলেই পৌর শহরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। ব্যক্তিগত হলেও পুকুর,জলাশয় ও ডোবা-নালা বরাট করতে হলে পরিবেশ অধিদপ্তর ও পৌর কর্তৃপেক্ষর অনুমতি নেওয়ার বিধান থাকলেও অনুমতি ছাড়াই প্রতিনিয়ত বালু দিয়ে এসব বরাট করা হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল জানান পৌরবাসীর দূর্ভোগ লাঘবে বেহাল হয়ে পড়া রাস্তাগুলো সংস্কারে চার স্তরে ১০ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকার টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে এবং শিগগিরই এর কাজ শুরু করা হবে। এদিকে বর্ষা মৌসুমে এ কাজের গুনগত মান কতটা নিশ্চিত হবে তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018