শনিবার, ২০ Jul ২০১৯, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
নগরীতে বৃষ্টির সঙ্গে বাড়ছে মশার দাপট

নগরীতে বৃষ্টির সঙ্গে বাড়ছে মশার দাপট

শহিদুল ইসলাম ॥ বর্ষার সঙ্গে সঙ্গে বরিশাল নগরীতে ব্যাপক হারে বেড়েছে মশার উৎপাত। কয়েল, মশারি, ওষুধ স্প্রে ও ইলেকট্রিক ব্যাট কোন কিছুতেই মশা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না বলে জানান নগরবাসী। তাদের অভিযোগ, মশার উপদ্রব বাড়লেও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম তেমন একটা চোখে পড়ছে না। এদিকে সিটি কর্পোরেশন বলছে, মশক নিয়ন্ত্রণে নানা উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। চলছে বর্ষা মৌসুম। বৃষ্টির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জলাশয়, ডোবা, নর্দমা ও ড্রেনের পচা পানিতে জন্ম নিচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির মশা। আর নতুন করে জন্ম নেয়া মশার উৎপাতে অতিষ্ঠ সাগরদি, জিয়া সড়ক, রুইয়া, কাউনিয়া, রুপাতলী, ব্রাউন কম্পাউন্ডসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের মানুষ। সিটি কর্পোরেশন বলছে, মশা নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত ওষুধ স্প্রেসহ নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন তারা। নগরীর ভিআইপি এলাকায় মশার আনাগোনা কম থাকলেও বর্ধিত এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ, বর্ষায় মশার উৎপাত বৃদ্ধি পেলেও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে কেউ এগিয়ে আসছে না তাদের পাশে। অথচ সিটি কর্পোরেশনের তথ্য মতে, মশা নিয়ন্ত্রণে নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে মশক নিধন কর্মী ও ফগার মেশিন রয়েছে এবং পর্যাপ্ত ওষুধ রয়েছে সিটি কর্পোরেশনে। বর্ধিত এলাকার বিভিন্ন স্থানের বাসিন্দারা জানান, আগে থেকেই মশার উৎপাত ছিল। এরপর আবার টানা বৃষ্টিতে বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে মশার উৎপাত বেড়েছে কয়েক গুণ। ঘরে মশার কয়েল জালিয়েও থাকা যাচ্ছে না। বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, এমন অবস্থায় মশাবাহিত রোগ যেমন ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া ও চিকনগুনিয়া ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন তারা। তাছাড়া বর্ষা মৌসুমে মশা বাড়াতে পারে স্বীকার করে বিসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খায়রুল হাসান জানান, আমরা নিয়মিত মশার ঔষধ স্প্রে করছি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018