শনিবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:১৯ অপরাহ্ন

বরিশালে ঈদের অজুহাতে ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্য

বরিশালে ঈদের অজুহাতে ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্য

অনলাইন ডেস্কঃ বরিশালে ঈদ-উল-আজহা’র অজুহাতে বিভিন্ন পরিবহন খাতে ভাড়া আদায়ে নৈরাজ্য দেখা দিয়েছে। নগরের বিভিন্ন স্থানসহ বরিশাল শহরের একটু বাহিরে যাত্রীদের ওপর নেমে এসেছে বাড়তি ভাড়া আদায়ের খড়গ।

ঈদের অজুহাতে নগরের ব্যাটারি চালিত আটোরিক্সা,গ্যাস চালিত অটোরিকশা,মাহেন্দ্রা ও রিক্সায় যাত্রী প্রতি ভাড়া দ্বিগুন নিচ্ছে বলে যাত্রীদের অভিযোগ। নগরের বেশ কয়েকটি স্থানে দেখা গেছে যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুন ভাড়া আদায়ে নিয়ে যাত্রী ও চালকদের সাথে বাকবিতন্ডতার চিত্র।

যাত্রী শাহিন বলেন, ১২ আগস্ট সকালে কোরবানীর গরুর মাংস নিয়ে ব্যাস্ততার কারনে ছেলে মেয়ের নিয়ে বের হতে পারিনি তাই সন্ধ্যা নামতেই বাড়তি ভাড়া আদায়ের কবলে পড়েন তিনি। লঞ্চঘাট থেকে আটোরিক্সা,মাহেন্দ্রায় শিশু পার্ক ভাড়া ৫ টাকা কিন্তু আজ মঙ্গলবার দিতে হচ্ছে ১০ টাকা। শুধু তাই নয় রিক্সার ভাড়াও আগের চেয়ে দ্বিগুন আজ। শিশুপার্ক থেকে মুক্তিযোদ্ধা পার্কে রিক্সার ভাড়া হলো ১০ টাকা। কিন্তু রিক্সা চালককে ১৫ টাকা ভাড়া দেওয়ার পরেও তিনি ভাড়া আরো বাড়িয়ে দিতে বলেন। অন্যদিকে দেখা গেছে,মুক্তিযোদ্ধা পার্কের গেটে সামনে ভাড়া নিয়ে আটোরিক্সার চালক ও যাত্রীর মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা সৃস্টি হয়েছে।

প্রসঙ্গে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালকরা বলছেন, আজ ভাই ঈদের দিন। সারা দিন গাড়ি চালাতে আছি। তাই ভাড়া একটু বাড়তি নিচ্ছি। গাড়ি কম তাই একটু যাত্রীদের চাপ বেশি।

দপদপিয়া সেতুতে ঘুরতে আসা ব্যাবসায়ী জাকির বলেন, আজ ঈদের দিন তাই বাচ্চাদের নিয়ে অটোরিক্সায় ঘুরতে আসলাম। ভাটিখানা থেকে এখানে আসতে ভাড়া দিতে হয়েছে ৩ শ’ টাকা। কিছু করার নেই। গাড়ির চালকদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে আমাদের মত যাত্রীরা।

এদিকে, চালকদের খেয়াল খুশি মতো ভাড়া নিচ্ছে বলে সাধারন যাত্রীদের মাঝে অভিযোগ উঠেছে। ভাড়া বৃদ্ধির ঘটনায় যাত্রীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। ভাড়া বৃদ্ধির কারণে এই চলাচলকারী যাত্রীদের সঙ্গে চালকদের বচসার ঘটনাও ঘটছে। চালক ও যাত্রীর মধ্যে হচ্ছে বাক-বিতন্ডা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © bdbulletin.com 2018